নাটোরের আদর্শ গ্রাম হুলহুলিয়া পরিদর্শন করলেন জেলা প্রশাসক

AatraiAatrai
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৯:০২ PM, ২৪ অগাস্ট ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক
নাটোরের সিংড়া উপজেলার চৌগ্রাম ইউনিয়নে আদর্শ গ্রাম হুলহুলিয়া পরিদর্শন করেছেন নাটোরের জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ।মঙ্গলবার (২৪ আগস্ট) দুপুরে তিনি এ গ্রাম পরিদর্শন করেন এবং কিছু দিক নির্দেশনা দেন।

জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ বলেন, আমি বিমহিত হয়েছি, এটা শুধু নাটোর জেলার জন্য না সারাদেশের জন্য দৃষ্টান্ত হতে পারে। বিগত ২০০ বছরের ইতিহাসে এ গ্রামে কোনো মামলা নাই। গ্রামের বিচার ব্যবস্থা, শতভাগ শিক্ষিতের হার, নির্বাচনের পদ্ধতি সবকিছু মিলে নাটোরের জন্য অহংকারের বিষয়। পরবর্তীতেও তারা এটা বজায় রাখবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন জেলা প্রশাসক।
এসময় তিনি, হুলহুলিয়া সামাজিক উন্নয়ন পরিষদ কার্যালয়, ডিজিটাল হাব সেন্টার, কমিউনিটি সেন্টার, বিচার কক্ষ, পাঠাগারসহ বিভিন্ন স্থাপনা পরিদর্শন করেন এবং সামাজিক উন্নয়ন পরিষদের নেতৃবৃন্দের সাথে কথা বলেন। এর আগে তিনি তাজপুর ইউনিয়ন পরিষদ পরিদর্শন করেন।

এসময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) নাদিম সারোয়ার, সিংড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এম এম সামিরুল ইসলাম, চৌগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম ভোলা, হুলহুলিয়া সামাজিক উন্নয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আল তৌফিক পরশ, ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ আলমগীর কবির শাহ্ উপস্থিত ছিলেন।


হুলহুলিয়া সামাজিক উন্নয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আল তৌফিক পরশ বলেন, জেলা প্রশাসক মহোদয়ের উপস্থিতিতে আমরা হুলহুলিয়াবাসী মুগ্ধ হয়েছি।
তিনি তার গ্রাম নিয়ে সংক্ষেপে বলেন, আমাদের গ্রামে যদি কোনো ঝগড়াবিবাদ হয়ে থাকে, তাহলে আমাদের গ্রামের নিজস্ব বিধিবিধান আছে, সেখানে মীমাংসা করে ফেলি। আমাদের থানা বা কোর্টে যাওয়ার প্রয়োজন হয় না। গ্রামের মানুষ খুবই শান্তিপ্রিয়। শতভাগ শিতি গ্রাম হওয়ায় এখানে নেই কোনো বাল্যবিবাহ এবং গ্রামে আমাদের একটি আইসিটি হাব আছে, যা আমাদের গ্রাম ডিজিটালাইজড করার জন্য ভূমিকা রাখে। ১২টি পাড়া নিয়ে হুলহলিয়া গ্রামটি প্রতিষ্ঠিত এবং ১২টি পাড়ায় নিজস্ব বিচার বিভাগ আছে। গ্রামের সর্বোচ্চ আদালত হুলহুলিয়া সামাজিক উন্নয়ন পরিষদ। যদি গ্রামের কোনো মানুষের কোনো সমস্যা থাকে তাহলে তারা পরিষদের কাছে লিখিত অভিযোগ করলে বিনা পয়সায় সুষ্ঠু ফয়সালা করা হয় এবং সেটা সবাই মেনে নেয়। গ্রামের একটি নিজস্ব বিধিবিধান আছে। সেই বিধিবিধান মেনে গ্রাম পরিচালনা করা হয়ে থাকে।

১০ নম্বর চৌগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মোঃ জাহেদুল ইসলাম বলেন, হুলহুলিয়া চৌগ্রাম অন্তর্গত একটি গ্রাম। গ্রামের শতভাগ মানুষ শিতি। গ্রামে সামাজিক উন্নয়ন পরিষদ রয়েছে। চেয়ারম্যান সদস্যদের নিয়ে একটি সালিসি বোর্ড গঠন করে গ্রাম উন্নয়নে কাজ করে থাকেন। হুলহুলিয়া গ্রাম আমাদের সিংড়ার একটি ঐতিহ্যবাহী গ্রাম, একটি আদর্শ গ্রাম।

সিংড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এম এম সামিরুল ইসলাম বলেন, হুলহুলিয়া গ্রাম দেশের আর ১০টা গ্রাম থেকে আলাদা। গ্রামের মানুষ সামাজিক বন্ধনকে বেশি গুরুত্ব দেয়। এমন আদর্শ গ্রাম যেন দেশের প্রতিটা জায়গায় হয়।

 174 total views,  10 views today

আপনার মতামত লিখুন :